সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার পরিচিতি

পোস্টার, হ্যান্ডবিল, ব্যানার, চিঠিপত্র ইত্যাদির শুরুতে ৭৮৬ (বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম) লিখার ক্ষেত্রে শরয়ী ফায়সালা কি?

পোস্টার, হ্যান্ডবিল, ব্যানার, চিঠিপত্র ইত্যাদির শুরুতে ৭৮৬ (বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম) লিখার ক্ষেত্রে শরয়ী ফায়সালা ﺑﺴﻢ ﺍﻟﻠﻪ ﺍﻟﺮ ﺣﻤﻦ ﺍﻟﺮ ﺣﻴﻢ সমস্ত প্রশংসা সেই মহান আল্লাহ্ পাক রাব্বুল আ’লামীন উনার দরবারে, যিনি অসংখ্য মাখলূকাতের মধ্যে একমাত্র মানব জাতিকে তথা মানুষকে সর্বশ্রেষ্ঠ মর্যাদা দান করেছেন অর্থাৎ “আশরাফুল মাখলুকাত” করেছেন। সর্বোত্তম আখলাকের অধিকারী আখিরী রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ … Continue reading "পোস্টার, হ্যান্ডবিল, ব্যানার, চিঠিপত্র ইত্যাদির শুরুতে ৭৮৬ (বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম) লিখার ক্ষেত্রে শরয়ী ফায়সালা কি?"

জন্মোৎসব পালন মূলত একটি পৌত্তলিক রীতি। কোনো ধর্মগ্রন্থ বা নাবীদের শিক্ষায় এর অস্তিত্ব নেই।

বিভিন্ন বাতিল ফিরকার লোকেরা পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরুধীতা করতে গিয়ে বলে থাকে ‘জম্মোৎসব পালন করা নাকি পৌত্তলিক রীতি এবং কোনো ধর্মগ্রন্থ বা নাবীদের শিক্ষায় নাকি এর কোন অস্তিত্ব নেই। !!’ নাউযুবিল্লাহ। অথচ জন্মোৎসব পালন বা জন্মদিন উৎযাপন মোটেও কোন পৌত্তলিক রীতি নয়। বরং পবিত্র কুরআন শরীফ ও হাদীছ শরীফ … Continue reading "জন্মোৎসব পালন মূলত একটি পৌত্তলিক রীতি। কোনো ধর্মগ্রন্থ বা নাবীদের শিক্ষায় এর অস্তিত্ব নেই।"

পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের আগে নামায, রোযা, হজ্জ, যাকাত ঠিকমত আদায় করতে হবে। কারণ কিয়ামতের ময়দানে এসবের হিসেব নেওয়া হবে, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের নয়।

ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ (ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর বিরুধীতাকারীরা বলে থাকে “পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের আগে নামায, রোযা, হজ্জ, যাকাত ঠিকমত আদায় করতে হবে। কারণ কিয়ামতের ময়দানে এসবের হিসেব নেওয়া হবে, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের নয়।” তাদেরকে বলতে চাই পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি … Continue reading "পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের আগে নামায, রোযা, হজ্জ, যাকাত ঠিকমত আদায় করতে হবে। কারণ কিয়ামতের ময়দানে এসবের হিসেব নেওয়া হবে, পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালনের নয়।"

আযান, ইক্বামত কিংবা খুতবায় এমন কোন সময় মহান আল্লাহ পাক উনার নাম উচ্চারিত হয়না যখনই তার পরপরই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক না উচ্চারিত হয়। শ্রদ্ধা, ভালবাসা প্রদর্শন এবং উনার স্মৃতিকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য এটাই যথেষ্ট, এটাই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে অনুসরণ করার জন্য যথেষ্ট পরিমাণে উৎসাহব্যঞ্জক। আলাদা করে প্রশংসা করার জন্য মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করার দরকার নেই

পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এরবিরুধীতা কারীরা বলে থাকে , “আযান, ইক্বামত কিংবা খুতবায় এমন কোন সময় মহান আল্লাহ পাক উনার নাম উচ্চারিত হয়না যেখানে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক না উচ্চারিত হয়। শ্রদ্ধা, ভালবাসা প্রদর্শন এবং উনার স্মৃতিকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য এটাই যথেষ্ট, এটাই … Continue reading "আযান, ইক্বামত কিংবা খুতবায় এমন কোন সময় মহান আল্লাহ পাক উনার নাম উচ্চারিত হয়না যখনই তার পরপরই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক না উচ্চারিত হয়। শ্রদ্ধা, ভালবাসা প্রদর্শন এবং উনার স্মৃতিকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য এটাই যথেষ্ট, এটাই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে অনুসরণ করার জন্য যথেষ্ট পরিমাণে উৎসাহব্যঞ্জক। আলাদা করে প্রশংসা করার জন্য মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পালন করার দরকার নেই"

সাওম তথা রোযা হল ঈদের বিপরীত। রোযা পালন করলে ঈদ পালন করা যায় না, ঈদ ও রোযা কখনো এক সাথে হয় না। হাদীসে এসেছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জন্মদিনে রোযা রাখার কথা। কিন্তু রোযা না রেখে এর বিপরীতে ঈদ পালন করার পিছনে কি যুক্তি থাকতে পারে?

বিভিন্ন বাতিল ও গোমরাহ ফেরকার লোকেরা ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরুধীতা করতে গিয়ে বলে থাকে, রোযা নাকি ঈদ এর বিপরীত এবং নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি উনার জম্মদিনে রোযা রেখেছেন আর আমরা ঈদ পালন করাই নাকি হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরুধীতা করি !! প্রকৃত বিষয় হল, সাওম … Continue reading "সাওম তথা রোযা হল ঈদের বিপরীত। রোযা পালন করলে ঈদ পালন করা যায় না, ঈদ ও রোযা কখনো এক সাথে হয় না। হাদীসে এসেছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার জন্মদিনে রোযা রাখার কথা। কিন্তু রোযা না রেখে এর বিপরীতে ঈদ পালন করার পিছনে কি যুক্তি থাকতে পারে?"

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মুবারক তাজদীদ – সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ তথা সকল ঈদের সেরা ঈদ, ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমন মুবারকের ঈদ

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক তাজদীদ আন নাযীরু, আন নাজমুছ ছাক্বিবু, আন নূরুম মুজাসসামু, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদত শরীফ উনার দিনই হচ্ছে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ, সাইয়্যিদু ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদু ঈদে আকবর এবং তা পালন করা জিন-ইনসান তো অবশ্যই বরং … Continue reading "সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মুবারক তাজদীদ – সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ তথা সকল ঈদের সেরা ঈদ, ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অর্থাৎ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমন মুবারকের ঈদ"

নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যে দিন বিলাদত শরীফ (জন্ম) গ্রহণ করেন সেই দিন চাঁদ কেমন ছিলো ?? আসুন, ইতিহাস ও বিজ্ঞান মিলিয়ে নেই

নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যে দিন বিলাদত শরীফ (জন্ম) গ্রহণ করেন সেই দিন চাঁদ কেমন ছিলো ?? আসুন, ইতিহাস ও বিজ্ঞান মিলিয়ে নেই উল্লিখিত পবিত্র রাতটি প্রসঙ্গে স্বয়ং নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ‍উনার সম্মানিতা আম্মাজান হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম বলেন, ‘এটা ছিলো চন্দ্রের আলোয় আলোকিত রাত। চারপাশে কোন প্রকার অন্ধকার ছিলো না। সে … Continue reading "নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যে দিন বিলাদত শরীফ (জন্ম) গ্রহণ করেন সেই দিন চাঁদ কেমন ছিলো ?? আসুন, ইতিহাস ও বিজ্ঞান মিলিয়ে নেই"

অ্যাস্ট্রোনমারদের গবেষণায় নির্ভুলভাবে প্রমাণ হয় ১২ই রবিউল আউয়াল শরীফ-ই হচ্ছে নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমণ (জন্ম) এর দিন

অ্যাস্ট্রোনমারদের গবেষণায় নির্ভুলভাবে প্রমাণ হয় ১২ই রবিউল আউয়াল শরীফই হচ্ছে নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমন (জন্ম) এর দিন। যেমন দেখুন নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিদায় গ্রহণের দিন ছিলো: হিজরী সন: ১১ হিজরীর ১২ই রবিউল আউয়াল ঈসায়ী সন: ৬৩২ সাল, ৮ই জুন বার: সোমবার **(১ নং দ্রষ্টব্য দেখুন) Back Calculation করে দেখা … Continue reading "অ্যাস্ট্রোনমারদের গবেষণায় নির্ভুলভাবে প্রমাণ হয় ১২ই রবিউল আউয়াল শরীফ-ই হচ্ছে নবীজি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার আগমণ (জন্ম) এর দিন"

সাবধান! মৌলুদ আর মিলাদ কিন্তু এক নয় !

ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর বিরোধীরা প্রায় বলে থাকে, হযরত মুজাদ্দিদে আলফে সানী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি নাকি ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিরোধীতা করেছেন এবং তার দলীল স্বরুপ এর জন্য উনার একটি দলিল পেশ করে, যেখানে মুজাদ্দিদে আলফে সানী রহমতুল্লাহি বলেন- “যদি আল্লাহর নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আজকের যুগের … Continue reading "সাবধান! মৌলুদ আর মিলাদ কিন্তু এক নয় !"

ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাহফিলে নানা ধরণের বিদআত ও পাপাচার হয়, তাই তা করা যাবে না এই কথা কতটুকু সত্য?

অনেকে বলে থাকে পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলােইহি ওয়া সাল্লাম উনার মাহফিলে অনেক বিদয়াত পাপাচার হই তাই ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু পালন করাই নাকি বিদয়াত মূলত তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে, মাথাই ব্যাথা হলে পুরো মাথা কেটে ফেলার মত। ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাহফিলের নামে অনেকে হারাম কাজ করতে পারে, কিন্তু সেটার দায় … Continue reading "ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাহফিলে নানা ধরণের বিদআত ও পাপাচার হয়, তাই তা করা যাবে না এই কথা কতটুকু সত্য?"