বিশেষ পোস্ট ১২০

উলামায়ে ছূ তথা ধর্মব্যবসায়ী মাওলানা, আনজুমানে মফিদুল ইসলাম, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন এদেরকে যাকাত দিলে যাকাত তো আদায় হবেই না বরং আরো গুনাহগার হতে হবে

উলামায়ে সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ী মাওলানা দ্বারা পরিচালিত মাদরাসা অর্থাৎ যারা আব্রাহাম লিংকনের হারাম গনতন্ত্র,কমিউনিস্ট মাউসেতুং এর লংমার্চ,মুশরিক গান্ধীর হরতাল, মৌলবাদ, সন্ত্রাসবাদ, কুশপুত্তলিকা দাহ ও অন্যান্য কুফরী মতবাদের সাথে সম্পৃক্ত, সেই সব মাদরাসাগুলোতে পবিত্র যাকাত প্রদান করলে পবিত্র যাকাত আদায় হবে না। যেমন পত্রিকার রিপোর্টে পাওয়া যায়, জামাতী-খারিজীরা তাদের নিয়ন্ত্রিত মাদরাসায় সংগৃহীত যাকাত, ফিতরা, কুরবানীর চামড়ার … Continue reading "উলামায়ে ছূ তথা ধর্মব্যবসায়ী মাওলানা, আনজুমানে মফিদুল ইসলাম, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন এদেরকে যাকাত দিলে যাকাত তো আদায় হবেই না বরং আরো গুনাহগার হতে হবে"

বর্তমানে রুপার নিছাব হিসেবে যাকাত দেওয়া উত্তম

গরীবদের উপকার্থে বর্তমানে রুপার নিছাব হিসেবে যাকাত দেওয়া উত্তম। মূলত পবিত্র যাকাত যে সময়ে ফরয হয় সে সময়ে সাড়ে ৭ তোলা স্বর্ণের মূল্য সাড়ে ৫২ তোলা রূপার মূল্যের সমান ছিল বিধায় সোনা ও রূপা উভয়টিই নিছাবের মূল সূত্রের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। তাই এ সূত্রানুসারে উভয়ের যে কোন একটির মূল্য ধরলেই হয়। তবে বর্তমানে যেহেতু রূপার মূল্য … Continue reading "বর্তমানে রুপার নিছাব হিসেবে যাকাত দেওয়া উত্তম"

খাজনা অন্যান্য কর এবং ইনকাম ট্যাক্স দিলেও পবিত্র যাকাত আদায় করতে হবে

ফিকাহ ও ফতোয়ার শতসিদ্ধ মতানুসারে সরকারী রাজস্ব খাতে খাজনা, কর ও ইনকামট্যাক্স ইত্যাদি দিলেও যাদের উপর পবিত্র যাকাত ফরয তাদেরকে অবশ্যই পবিত্র যাকাত ও পবিত্র উশর আলাদাভাবে আদায় করতে হবে। মূলত পবিত্র যাকাত, মুসলমান উনাদের মালের ট্যাক্স বা খাজনা ও কর কোনটাই নয়; ইহা মুসলমান উনাদের এটা একটি পবিত্র মালি ইবাদত। ইহা শুধু মুসলমান উনাদের … Continue reading "খাজনা অন্যান্য কর এবং ইনকাম ট্যাক্স দিলেও পবিত্র যাকাত আদায় করতে হবে"

সম্মানিত শরীয়ত মতে যেসব মাল সম্পদের যাকাত আদায় করতে হবে

মূলত পবিত্র যাকাত মুসলমান উনাদের প্রায় যাবতীয় মালেই ফরয, যদি তার নিছাব ও শর্ত পূরণ হয়। যেমন- সোনা-রূপা, নগদ অর্থ, যমীনে উৎপন্ন ফসল ও ফলফলাদি, যমীনে প্রাপ্ত গুপ্ত ধন, খণিতে প্রাপ্ত খণিজ দ্রব্য, ব্যবসায়ের পণ্যদ্রব্য, গৃহপালিত পশু, যেমন- উট, গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া এসকল প্রকার মালেই পবিত্র যাকাত ফরয। (আল হিদায়া) পবিত্র যাকাত প্রদানের জন্য … Continue reading "সম্মানিত শরীয়ত মতে যেসব মাল সম্পদের যাকাত আদায় করতে হবে"

সম্মানিত শরীয়ত মতে পবিত্র যাকাত উনার নিসাব

পবিত্র যাকাত উনার নিসাব:  যে পরিমাণ অর্থ-সম্পদ বা নগদ অর্থ কোন ব্যক্তির সাংসারিক সকল মৌলিক প্রয়োজন বা চাহিদা মিটানোর পর অতিরিক্ত সম্পদ যা সাড়ে ৭ তোলা স্বর্ণ অথবা সাড়ে ৫২ তোলা রৌপ্য অথবা ঐ সমপরিমাণ অর্থ-সম্পদ নির্দিষ্ট তারিখে পূর্ণ এক বছর ঐ ব্যক্তির মালিকানায় থাকলে তা থেকে পবিত্র যাকাত প্রদান করা ফরয হয়, নূন্যতমভাবে ঐ পরিমাণ … Continue reading "সম্মানিত শরীয়ত মতে পবিত্র যাকাত উনার নিসাব"

সম্মানিত পবিত্র শরীয়ত মতে যাদের উপর পবিত্র যাকাত আদায় করা ফরয

সম্মানিত পবিত্র শরীয়ত মতে যাদের উপর পবিত্র যাকাত আদায় করা ফরয। ==> (১) পবিত্র যাকাতদাতাকে মুসলমান হতে হবে। (২) বালেগ বা প্রাপ্ত বয়স্ক। (৩) আক্বেল বা বিবেক বুদ্ধি সম্পন্ন। (৪) আযাদ বা স্বাধীন। (৫) নিছাব অর্থাৎ সাড়ে ৭ তোলা স্বর্ণ অথবা সাড়ে ৫২ তোলা রূপা অথবা তার সমপরিমাণ মূল্য বা টাকা অর্থাৎ নিছাব পূর্ণ হওয়া। … Continue reading "সম্মানিত পবিত্র শরীয়ত মতে যাদের উপর পবিত্র যাকাত আদায় করা ফরয"

পবিত্র যাকাত এমন একটি ভিত্তি যার উপর সম্মনিত দ্বীন ইসলাম সুদৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়ে থাকে

পবিত্র যাকাত উনার গুরুত্ব ও ফযীলত পবিত্র যাকাত সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার ৫টি রোকন বা স্তম্ভসমূহের মধ্যে ৩য় বা মধ্যবর্তী রোকন বা মূল ভিত্তি। পবিত্র ঈমান ও নামায উনাদের পরেই পবিত্র যাকাত উনার স্থান। যেমন পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عَنِ حَضَرَتْ اِبْنِ عُمَرَ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰى عَنْهُ قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ … Continue reading "পবিত্র যাকাত এমন একটি ভিত্তি যার উপর সম্মনিত দ্বীন ইসলাম সুদৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়ে থাকে"

পবিত্র যাকাত শব্দের অর্থ

পবিত্র যাকাত শব্দের আভিধানিক অর্থঃ زكوة ‘যাকাত’ শব্দের আভিধানিক অর্থ হচ্ছে বৃদ্ধি, প্রবৃদ্ধি, বরকত, পবিত্রতা ইত্যাদি। যেহেতু পবিত্র যাকাত প্রদানে যাকাতদাতার মাল বাস্তবে কমে না; বরং বৃদ্ধি পায়, পবিত্র হয় এবং কৃপণতার কলুষ হতে নিজেও পবিত্রতা লাভ করে। মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে সরাসরি ৩২ বার زكوة ‘যাকাত’ শব্দ মুবারক উল্লেখ … Continue reading "পবিত্র যাকাত শব্দের অর্থ"

স্বয়ং নূরে মুজাসসাম,হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মীলাদ শরীফ উনার ও ১২ রবিউল আউয়াল শরীফ দিবস উনাকে সম্মান করার সর্বোচ্চ ফজিলত মুবারক বর্ননা করেছেন। সুবহানআল্লাহ!

স্বয়ং নূরে মুজাসসাম,হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মীলাদ উনার ফজিলত ও ১২ রবিউল আউয়াল শরীফ দিবস উনাকে সম্মান করার ফজিলত বর্ণনা করেছেন। সুবহানআল্লাহ! পবিত্র হাদীস শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, قَالَ النَّبِـىُّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ مَنْ عَظَّمَ مَوْلِدِىْ وَهُوَ لَيْلَةُ اثْنَـىْ عَشَرَ مِنْ رَّبِيْع الْاَوَّلِ بِاتِّـخَاذِهٖ فِيْهَا طَعَامًا كُنْتُ لَهٗ … Continue reading "স্বয়ং নূরে মুজাসসাম,হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মীলাদ শরীফ উনার ও ১২ রবিউল আউয়াল শরীফ দিবস উনাকে সম্মান করার সর্বোচ্চ ফজিলত মুবারক বর্ননা করেছেন। সুবহানআল্লাহ!"

খায়রুল কুরুনের যুগে পবিত্র রবিউল আউয়াল শরীফ মাসে খলীফা হারুনুর রশীদের যামানায় পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার সম্মানার্থে পবিত্র মীলাদ শরীফ মাসকে তাযীম করায় এক ব্যক্তি ওলী আল্লাহ হিসাবে আখ্যায়িত হলেন। সুবহানাল্লাহ!

খায়রুল কুরুনের যুগে পবিত্র রবিউল আউয়াল শরীফ মাসে খলীফা হারুনুর রশীদের যামানায় পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার সম্মানার্থে পবিত্র মীলাদ শরীফ মাসকে তাযীম করায় এক ব্যক্তি ওলী আল্লাহ হিসাবে আখ্যায়িত হলেন। সুবহানাল্লাহ। আল্লামা সাইয়্যিদ আবু বকর মক্কী আদ দিময়াতী আশ শাফেয়ী রহমতুল্লাহি আলাইহি (ওফাত: ১৩০২ হিজরী) উনার বিখ্যাত “ইয়নাতুল ত্বলেবীন” কিতাবে বর্ণনা করেন, বর্ণিত রয়েছে, খলীফা … Continue reading "খায়রুল কুরুনের যুগে পবিত্র রবিউল আউয়াল শরীফ মাসে খলীফা হারুনুর রশীদের যামানায় পবিত্র মীলাদ শরীফ উনার সম্মানার্থে পবিত্র মীলাদ শরীফ মাসকে তাযীম করায় এক ব্যক্তি ওলী আল্লাহ হিসাবে আখ্যায়িত হলেন। সুবহানাল্লাহ!"